প্রযুক্তির শক্তিতে  নিজের পায়ে দাঁড়াবার সুযোগ করে দিয়েছে সরকার : পলক

প্রযুক্তির শক্তিতে নিজের পায়ে দাঁড়াবার সুযোগ করে দিয়েছে সরকার : পলক

দেশের শেখ রাসেল ডিজিটাল কম্পিউটার ল্যাবগুলোতে আইসিটি বিভাগের দেয়ো ল্যাপটপগুলো সবার জন্য উন্মুক্ত করে দেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। তিনি জানিয়েছেন, ইতোমধ্যেই জামালপুরে ১৬৮টি শেখ রাসেল ডিজিটাল কম্পিউটার ল্যাব স্থাপন করা হয়েছে। একইসঙ্গে এসব ল্যাবের কার্যকারিতা নিয়ে আইসিটি বিভাগের পক্ষ থেকে একটি সার্ভে করা হয়েছে জানিয়ে উপস্থিত শিক্ষক ও কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্যে পলক বলেন, ‘ দয়া করে শেখ রাসেল ডিজিটাল কম্পিউটার ল্যাব ছাত্র-ছাত্রীদের ব্যবহারের জন্য উন্মুক্ত করে দেবেন। তালা দিয়ে ধূলায় এই ল্যাপটপগুলো নষ্ট করবেন না ‘

শিক্ষকদের উদ্দেশ্যে তিনি আরো বলেন, এখানে কোনো কোন ল্যাব সচল আছে, কোন কোন জায়গায় ল্যাপটপ মেরামত যোগ্য অবস্থায় আছে, কোন কোন জায়গায় ল্যাপটপগুলো অকার্যকর হয়ে গেছে এবং কোনো কোন স্কুলে এই ল্যাব ঠিক মতো চলছে না। আপনারা শুধু প্রযুক্তির শক্তিটা শিক্ষার্থীদের সামনে তুলে ধরেন। তাদেরকে ব্যবহার করার সুযোগ করে দিন। যদি ছাত্র-ছাত্রীরা ব্যবহার করতে গিয়ে এগুলো নষ্ট করে ফেলে জননেত্রী শেখ হাসিনা আপনাদের আবারও দেবে। কিন্তু অব্যবহৃত শেখ রাসেল ল্যাব বা শেখ রাসেল স্কুল অব ফিউচার নষ্ট হয়ে না থাকে সে বিষয়ে নজর দিন।’

বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশে আইসিটি উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের ব্রেনচাইল্ড বিভিন্ন উদ্যোগের ফলে তরুণ-তরণীরা এখন নিজের পায়ে দাঁড়িয়ে সহজেই আত্মকর্মসংস্থান করতে পারছেন বলে মন্তব্য করেন প্রতিমন্ত্রী। তিনি বলেন, শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশে আমাদের তরুণ-তরুণীদের নিজের পায়ে দাঁড়াতে এখন পা থাকারও প্রয়োজন নেই। তার প্রমাণ আপনারা দেখেছেন প্রথম সারিতে থাকা আমাদের আকলিমা। শেখ হাসিনা সরকার বাংলাদেশের প্রতিটি জেলা-উপজেলা, ইউনিয়ন পর্যন্ত এমন সুযোগ তৈরি করে দিয়েছে। ফলে আমাদের প্রিয় বোন, প্রযুক্তি নির্ভর শিক্ষ নিয়ে; ইন্টারনেট ব্যবহার করে, বিশেষ ভাবে সক্ষম হয়ে নিজেরে পায়ে দাঁড়িয়েছে। নিজের পা না থকালেও প্রযুক্তির শক্তি নিয়ে সে নিজের পায়ে দাঁড়িয়ে আত্মকর্মসংস্থান করেছে। এটা কোটি কোটি মানুষকে অনুপ্রাণিত করবে।’

অনুষ্ঠানে অব্যাহাত অনুরোধের ভিত্তিতে আগামীতে প্রাথমিক স্কুলগুলোতেও শেখ রাসেল কম্পিউটার ল্যাব স্থাপন করার পাইলট প্রকল্প হাতে নেয়ার ঘোষণা দেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাাইদ আহমেদ পলক।

শনিবার জামালপুর হাইটেক পার্কের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে দেয়া বক্তব্যে এসব কথা জানান আইসিটি প্রতিমন্ত্রী। জামালপুর ৫ আসনের সংসদ সদস্য মোঃ মোজাফ্ফর হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও সংসদ সদস্য মির্জা আজম।

এছাড়াও অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষের ব্যবস্থাপনা পরিচালক বিকর্ণ কুমার ঘোষ, জামাল জেলা প্রশাসক শ্রাবন্তী রায়, জেলা পুলিশ সুপার নাছির উদ্দিন আহমেদ, আইসিটি হাইটেক পার্ক প্রকল্প পরিচালক এ কে এ এম ফজলুল হক, লার্নিং অ্যান্ড আর্নিং প্রকল্প পরিচালক মোঃ হুমায়ুন কবীর প্রমুখ।

COMMENTS